(118 فَافْتَحْ بَيْنِي وَبَيْنَهُمْ فَتْحًا وَنَجِّنِي وَمَن مَّعِي مِنَ الْمُؤْمِنِينَ

অতএব, আমার ও তাদের মধ্যে কোন ফয়সালা করে দিন এবং আমাকে ও আমার সংগী মুমিনগণকে রক্ষা করুন।

“Judge Thou, then, between me and them openly, and deliver me and those of the Believers who are with me.

” (119 فَأَنجَيْنَاهُ وَمَن مَّعَهُ فِي الْفُلْكِ الْمَشْحُونِ

অতঃপর আমি তাঁকে ও তাঁর সঙ্গিগণকে বোঝাই করা নৌকায় রক্ষা করলাম।

So We delivered him and those with him, in the Ark filled (with all creatures).

(120 ثُمَّ أَغْرَقْنَا بَعْدُ الْبَاقِينَ

এরপর অবশিষ্ট সবাইকে নিমজ্জত করলাম।

Thereafter We drowned those who remained behind.

(121 إِنَّ فِي ذَلِكَ لَآيَةً وَمَا كَانَ أَكْثَرُهُم مُّؤْمِنِينَ

নিশ্চয় এতে নিদর্শন আছে এবং তাদের অধিকাংশই বিশ্বাসী নয়।

Verily in this is a Sign: but most of them do not believe.

(122 وَإِنَّ رَبَّكَ لَهُوَ الْعَزِيزُ الرَّحِيمُ

নিশ্চয় আপনার পালনকর্তা প্রবল পরাক্রমশালী, পরম দয়ালু।

And verily thy Lord is He, the Exalted in Might, Most Merciful.

(123 كَذَّبَتْ عَادٌ الْمُرْسَلِينَ

আদ সম্প্রদায় পয়গম্বরগণকে মিথ্যাবাদী বলেছে।

The ‘Ad (people) rejected the apostles.

(124 إِذْ قَالَ لَهُمْ أَخُوهُمْ هُودٌ أَلَا تَتَّقُونَ

তখন তাদের ভাই হুদ তাদেরকে বললেনঃ তোমাদের কি ভয় নেই?

Behold, their brother Hud said to them: “Will ye not fear ((Allah))?

(125 إِنِّي لَكُمْ رَسُولٌ أَمِينٌ

আমি তোমাদের বিশ্বস্ত রসূল।

“I am to you an apostle worthy of all trust:

(126 فَاتَّقُوا اللَّهَ وَأَطِيعُونِ

অতএব, তোমরা আল্লাহকে ভয় কর এবং আমার আনুগত্য কর।

“So fear Allah and obey me.

(127 وَمَا أَسْأَلُكُمْ عَلَيْهِ مِنْ أَجْرٍ إِنْ أَجْرِيَ إِلَّا عَلَى رَبِّ الْعَالَمِينَ

আমি তোমাদের কাছে এর জন্যে প্রতিদান চাই না। আমার প্রতিদান তো পালনকর্তা দেবেন।

“No reward do I ask of you for it: my reward is only from the Lord of the Worlds.

(128 أَتَبْنُونَ بِكُلِّ رِيعٍ آيَةً تَعْبَثُونَ

তোমরা কি প্রতিটি উচ্চস্থানে অযথা নিদর্শন নির্মান করছ?

“Do ye build a landmark on every high place to amuse yourselves?

(129 وَتَتَّخِذُونَ مَصَانِعَ لَعَلَّكُمْ تَخْلُدُونَ

এবং বড় বড় প্রাসাদ নির্মাণ করছ, যেন তোমরা চিরকাল থাকবে?

“And do ye get for yourselves fine buildings in the hope of living therein (for ever)?

(130 وَإِذَا بَطَشْتُم بَطَشْتُمْ جَبَّارِينَ

যখন তোমরা আঘাত হান, তখন জালেম ও নিষ্ঠুরের মত আঘাত হান।

“And when ye exert your strong hand, do ye do it like men of absolute power?

(131 فَاتَّقُوا اللَّهَ وَأَطِيعُونِ

অতএব, আল্লাহকে ভয় কর এবং আমার অনুগত্য কর।

“Now fear Allah, and obey me.

(132 وَاتَّقُوا الَّذِي أَمَدَّكُم بِمَا تَعْلَمُونَ

ভয় কর তাঁকে, যিনি তোমাদেরকে সেসব বস্তু দিয়েছেন, যা তোমরা জান।

“Yea, fear Him Who has bestowed on you freely all that ye know.

(133 أَمَدَّكُم بِأَنْعَامٍ وَبَنِينَ

তোমাদেরকে দিয়েছেন চতুষ্পদ জন্তু ও পুত্র-সন্তান,

“Freely has He bestowed on you cattle and sons,-

(134 وَجَنَّاتٍ وَعُيُونٍ এবং উদ্যান ও ঝরণা।

“And Gardens and Springs.

(135 إِنِّي أَخَافُ عَلَيْكُمْ عَذَابَ يَوْمٍ عَظِيمٍ

আমি তোমাদের জন্যে মহাদিবসের শাস্তি আশংকা করি।

“Truly I fear for you the Penalty of a Great Day.”

(136 قَالُوا سَوَاء عَلَيْنَا أَوَعَظْتَ أَمْ لَمْ تَكُن مِّنَ الْوَاعِظِينَ

তারা বলল, তুমি উপদেশ দাও অথবা উপদেশ নাই দাও, উভয়ই আমাদের জন্যে সমান।

They said: “It is the same to us whether thou admonish us or be not among (our) admonishers!

(137 إِنْ هَذَا إِلَّا خُلُقُ الْأَوَّلِينَ

এসব কথাবার্তা পূর্ববর্তী লোকদের অভ্যাস বৈ নয়।

“This is no other than a customary device of the ancients,

(138 وَمَا نَحْنُ بِمُعَذَّبِينَ আমরা শাস্তিপ্রাপ্ত হব না।

“And we are not the ones to receive Pains and Penalties!”

(139 فَكَذَّبُوهُ فَأَهْلَكْنَاهُمْ إِنَّ فِي ذَلِكَ لَآيَةً وَمَا كَانَ أَكْثَرُهُم مُّؤْمِنِينَ

অতএব, তারা তাঁকে মিথ্যাবাদী বলতে লাগল এবং আমি তাদেরকে নিপাত করে দিলাম। এতে অবশ্যই নিদর্শন আছে; কিন্তু তাদের অধিকাংশই বিশ্বাসী নয়।

So they rejected him, and We destroyed them. Verily in this is a Sign: but most of them do not believe.

(140 وَإِنَّ رَبَّكَ لَهُوَ الْعَزِيزُ الرَّحِيمُ

এবং আপনার পালনকর্তা, তিনি তো প্রবল পরাক্রমশালী, পরম দয়ালু।

And verily thy Lord is He, the Exalted in Might, Most Merciful.

(141 كَذَّبَتْ ثَمُودُ الْمُرْسَلِينَ সামুদ সম্প্রদায় পয়গম্বরগণকে মিথ্যাবাদী বলেছে।

The Thamud (people) rejected the apostles.

(142 إِذْ قَالَ لَهُمْ أَخُوهُمْ صَالِحٌ أَلَا تَتَّقُونَ

যখন তাদের ভাই সালেহ, তাদেরকে বললেন, তোমরা কি ভয় কর না?

Behold, their brother Salih said to them: “Will you not fear ((Allah))?