(143 إِنِّي لَكُمْ رَسُولٌ أَمِينٌ আমি তোমাদের বিশ্বস্ত পয়গম্বর।

“I am to you an apostle worthy of all trust.

(144 فَاتَّقُوا اللَّهَ وَأَطِيعُونِ অতএব, আল্লাহকে ভয় কর এবং আমার আনুগত্য কর।

“So fear Allah, and obey me.

(145 وَمَا أَسْأَلُكُمْ عَلَيْهِ مِنْ أَجْرٍ إِنْ أَجْرِيَ إِلَّا عَلَى رَبِّ الْعَالَمِينَ

আমি এর জন্যে তোমাদের কাছে কোন প্রতিদান চাই না। আমার প্রতিদান তো বিশ্ব-পালনকর্তাই দেবেন।

“No reward do I ask of you for it: my reward is only from the Lord of the Worlds.

(146 أَتُتْرَكُونَ فِي مَا هَاهُنَا آمِنِينَ

তোমাদেরকে কি এ জগতের ভোগ-বিলাসের মধ্যে নিরাপদে রেখে দেয়া হবে?

“Will ye be left secure, in (the enjoyment of) all that ye have here?-

(147 فِي جَنَّاتٍ وَعُيُونٍ

উদ্যানসমূহের মধ্যে এবং ঝরণাসমূহের মধ্যে ?

“Gardens and Springs,

(148 وَزُرُوعٍ وَنَخْلٍ طَلْعُهَا هَضِيمٌ

শস্যক্ষেত্রের মধ্যে এবং মঞ্জুরিত খেজুর বাগানের মধ্যে ?

“And corn-fields and date-palms with spathes near breaking (with the weight of fruit)?

(149 وَتَنْحِتُونَ مِنَ الْجِبَالِ بُيُوتًا فَارِهِينَ

তোমরা পাহাড় কেটে জাঁক জমকের গৃহ নির্মাণ করছ।

“And ye carve houses out of (rocky) mountains with great skill.

(150 فَاتَّقُوا اللَّهَ وَأَطِيعُونِ সুতরাং তোমরা আল্লাহকে ভয় কর এবং আমার অনুগত্য কর।

“But fear Allah and obey me;

(151 وَلَا تُطِيعُوا أَمْرَ الْمُسْرِفِينَ

এবং সীমালংঘনকারীদের আদেশ মান্য কর না;

“And follow not the bidding of those who are extravagant,-

(152 الَّذِينَ يُفْسِدُونَ فِي الْأَرْضِ وَلَا يُصْلِحُونَ

যারা পৃথিবীতে অনর্থ সৃষ্টি করে এবং শান্তি স্থাপন করে না;

“Who make mischief in the land, and mend not (their ways).”

(153 قَالُوا إِنَّمَا أَنتَ مِنَ الْمُسَحَّرِينَ

তারা বলল, তুমি তো জাদুগ্রস্থুরেদ একজন।

They said: “Thou art only one of those bewitched!

(154 مَا أَنتَ إِلَّا بَشَرٌ مِّثْلُنَا فَأْتِ بِآيَةٍ إِن كُنتَ مِنَ الصَّادِقِينَ

তুমি তো আমাদের মতই একজন মানুষ বৈ নও। সুতরাং যদি তুমি সত্যবাদী হও, তবে কোন নিদর্শন উপস্থিত কর।

“Thou art no more than a mortal like us: then bring us a Sign, if thou tellest the truth!”

(155 قَالَ هَذِهِ نَاقَةٌ لَّهَا شِرْبٌ وَلَكُمْ شِرْبُ يَوْمٍ مَّعْلُومٍ

সালেহ বললেন এই উষ্ট্রী, এর জন্যে আছে পানি পানের পালা এবং তোমাদের জন্যে আছে পানি পানের পালা নির্দিষ্ট এক-এক দিনের।

He said: “Here is a she-camel: she has a right of watering, and ye have a right of watering, (severally) on a day appointed.

(156 وَلَا تَمَسُّوهَا بِسُوءٍ فَيَأْخُذَكُمْ عَذَابُ يَوْمٍ عَظِيمٍ

তোমরা একে কোন কষ্ট দিও না। তাহলে তোমাদেরকে মহাদিবসের আযাব পাকড়াও করবে।

“Touch her not with harm, lest the Penalty of a Great Day seize you.”

(157 فَعَقَرُوهَا فَأَصْبَحُوا نَادِمِينَ

তারা তাকে বধ করল ফলে, তারা অনুতপ্ত হয়ে গেল।

But they ham-strung her: then did they become full of regrets.

(158 فَأَخَذَهُمُ الْعَذَابُ إِنَّ فِي ذَلِكَ لَآيَةً وَمَا كَانَ أَكْثَرُهُم مُّؤْمِنِينَ

এরপর আযাব তাদেরকে পাকড়াও করল। নিশ্চয় এতে নিদর্শন আছে। কিন্তু তাদের অধিকাংশই বিশ্বাসী নয়।

But the Penalty seized them. Verily in this is a Sign: but most of them do not believe.

(159 وَإِنَّ رَبَّكَ لَهُوَ الْعَزِيزُ الرَّحِيمُ

আপনার পালনকর্তা প্রবল পরাক্রমশালী, পরম দয়ালু।

And verily thy Lord is He, the Exalted in Might, Most Merciful.

(160 كَذَّبَتْ قَوْمُ لُوطٍ الْمُرْسَلِينَ লূতের সম্প্রদায় পয়গম্বরগণকে মিথ্যাবাদী বলেছে।

The people of Lut rejected the apostles. (161 إِذْ قَالَ لَهُمْ أَخُوهُمْ لُوطٌ أَلَا تَتَّقُونَ

যখন তাদের ভাই লূত তাদেরকে বললেন, তোমরা কি ভয় কর না ?

Behold, their brother Lut said to them: “Will ye not fear ((Allah))?

(162 إِنِّي لَكُمْ رَسُولٌ أَمِينٌ

আমি তোমাদের বিশ্বস্ত পয়গম্বর।

“I am to you an apostle worthy of all trust.

(163 فَاتَّقُوا اللَّهَ وَأَطِيعُونِ

অতএব, তোমরা আল্লাহকে ভয় কর এবং আমার আনুগত্য কর।

“So fear Allah and obey me.

(164 وَمَا أَسْأَلُكُمْ عَلَيْهِ مِنْ أَجْرٍ إِنْ أَجْرِيَ إِلَّا عَلَى رَبِّ الْعَالَمِينَ

আমি এর জন্যে তোমাদের কাছে কোন প্রতিদান চাই না।

আমার প্রতিদান তো বিশ্ব-পালনকর্তা দেবেন।

“No reward do I ask of you for it: my reward is only from the lord of the Worlds.

(165 أَتَأْتُونَ الذُّكْرَانَ مِنَ الْعَالَمِينَ

সারা জাহানের মানুষের মধ্যে তোমরাই কি পুরূষদের সাথে কুকর্ম কর?

“Of all the creatures in the world, will ye approach males,

(166 وَتَذَرُونَ مَا خَلَقَ لَكُمْ رَبُّكُمْ مِنْ أَزْوَاجِكُم بَلْ أَنتُمْ قَوْمٌ عَادُونَ

এবং তোমাদের পালনকর্তা তোমাদের জন্যে যে স্ত্রীগনকে সৃষ্টি করেছেন, তাদেরকে বর্জন কর? বরং তোমরা সীমালঙ্ঘনকারী সম্প্রদায়। “

And leave those whom Allah has created for you to be your mates? Nay, ye are a people transgressing (all limits)!”