(7 إِنَّ الَّذِينَ آمَنُوا وَعَمِلُوا الصَّالِحَاتِ أُوْلَئِكَ هُمْ خَيْرُ الْبَرِيَّةِ

যারা ঈমান আনে ও সৎকর্ম করে, তারাই সৃষ্টির সেরা।

Those who have faith and do righteous deeds,- they are the best of creatures.

(8 جَزَاؤُهُمْ عِندَ رَبِّهِمْ جَنَّاتُ عَدْنٍ تَجْرِي مِن تَحْتِهَا الْأَنْهَارُ خَالِدِينَ فِيهَا أَبَدًا رَّضِيَ اللَّهُ عَنْهُمْ وَرَضُوا عَنْهُ ذَلِكَ لِمَنْ خَشِيَ رَبَّهُ

তাদের পালনকর্তার কাছে রয়েছে তাদের প্রতিদান চিরকাল বসবাসের জান্নাত, যার তলদেশে নির্ঝরিণী প্রবাহিত। তারা সেখানে থাকবে অনন্তকাল। আল্লাহ তাদের প্রতি সন্তুষ্ট এবং তারা আল্লাহর প্রতি সন্তুষ্ট। এটা তার জন্যে, যে তার পালনকর্তাকে ভয় কর।

Their reward is with Allah. Gardens of Eternity, beneath which rivers flow; they will dwell therein for ever; Allah well pleased with them, and they with Him: all this for such as fear their Lord and Cherisher.

99) সূরা যিলযাল – Surah Al-Zalzalah (মদীনায় অবতীর্ণ – Ayah 8)

بِسْمِ اللّهِ الرَّحْمـَنِ الرَّحِيمِ শুরু করছি আল্লাহর নামে যিনি পরম করুণাময়, অতি দয়ালু।

(1 إِذَا زُلْزِلَتِ الْأَرْضُ زِلْزَالَهَا

যখন পৃথিবী তার কম্পনে প্রকম্পিত হবে,

When the earth is shaken to her (utmost) convulsion,

(2 وَأَخْرَجَتِ الْأَرْضُ أَثْقَالَهَا

যখন সে তার বোঝা বের করে দেবে।

And the earth throws up her burdens (from within),

(3 وَقَالَ الْإِنسَانُ مَا لَهَا

এবং মানুষ বলবে, এর কি হল ?

And man cries (distressed): ‘What is the matter with her?’

(4 يَوْمَئِذٍ تُحَدِّثُ أَخْبَارَهَا

সেদিন সে তার বৃত্তান্ত বর্ণনা করবে,

On that Day will she declare her tidings:

(5 بِأَنَّ رَبَّكَ أَوْحَى لَهَا

কারণ, আপনার পালনকর্তা তাকে আদেশ করবেন।

For that thy Lord will have given her inspiration.

(6 يَوْمَئِذٍ يَصْدُرُ النَّاسُ أَشْتَاتًا لِّيُرَوْا أَعْمَالَهُمْ

সেদিন মানুষ বিভিন্ন দলে প্রকাশ পাবে, যাতে তাদেরকে তাদের কৃতকর্ম দেখানো হয়।

On that Day will men proceed in companies sorted out, to be shown the deeds that they (had done).

(7 فَمَن يَعْمَلْ مِثْقَالَ ذَرَّةٍ خَيْرًا يَرَهُ

অতঃপর কেউ অণু পরিমাণ সৎকর্ম করলে তা দেখতে পাবে

Then shall anyone who has done an atom’s weight of good, see it!

(8 وَمَن يَعْمَلْ مِثْقَالَ ذَرَّةٍ شَرًّا يَرَهُ

এবং কেউ অণু পরিমাণ অসৎকর্ম করলে তাও দেখতে পাবে।

And anyone who has done an atom’s weight of evil, shall see it.

 

100) সূরা আদিয়াত – Surah Al-Adiyat (মক্কায় অবতীর্ণ – Ayah 11)

بِسْمِ اللّهِ الرَّحْمـَنِ الرَّحِيمِ শুরু করছি আল্লাহর নামে যিনি পরম করুণাময়, অতি দয়ালু।

(1 وَالْعَادِيَاتِ ضَبْحًا

শপথ উর্ধ্বশ্বাসে চলমান অশ্বসমূহের,

By the (Steeds) that run, with panting (breath),

(2 فَالْمُورِيَاتِ قَدْحًا

অতঃপর ক্ষুরাঘাতে অগ্নিবিচ্ছুরক অশ্বসমূহের

And strike sparks of fire,

(3 فَالْمُغِيرَاتِ صُبْحًا

অতঃপর প্রভাতকালে আক্রমণকারী অশ্বসমূহের

And push home the charge in the morning,

(4 فَأَثَرْنَ بِهِ نَقْعًا

ও যারা সে সময়ে ধুলি উৎক্ষিপ্ত করে

And raise the dust in clouds the while,

(5 فَوَسَطْنَ بِهِ جَمْعًا

অতঃপর যারা শক্রদলের অভ্যন্তরে ঢুকে পড়ে

And penetrate forthwith into the midst (of the foe) en masse;

(6 إِنَّ الْإِنسَانَ لِرَبِّهِ لَكَنُودٌ

নিশ্চয় মানুষ তার পালনকর্তার প্রতি অকৃতজ্ঞ।

Truly man is, to his Lord, ungrateful;

(7 وَإِنَّهُ عَلَى ذَلِكَ لَشَهِيدٌ

এবং সে অবশ্য এ বিষয়ে অবহিত

And to that (fact) he bears witness (by his deeds);

(8 وَإِنَّهُ لِحُبِّ الْخَيْرِ لَشَدِيدٌ

এবং সে নিশ্চিতই ধন-সম্পদের ভালবাসায় মত্ত।

And violent is he in his love of wealth.